৪. প্রতীক ও চিহ্ন

৪.১ | সকল সার্বজনীনগম্য স্থাপনা সার্বজনীনগম্যতার প্রতীক দ্বারা চিহ্নিত থাকতে হবে এবং স্থাপনা সংলগ্ন গণব্যবহার উপযোগী চলাচলের পথ থেকে সহজে, স্পষ্ট ভাবে দেখা যায় এমন স্থানে অবস্থিত হতে হবে।

 

সার্বজনীনগম্যতার প্রতীক

 

৪.২ | নীল পটভূমিতে সাদা রঙে অঙ্কিত, হুইলচেয়ারে বসে থাকা একজন ব্যক্তির ডানমুখী পার্শ্ব অবয়ব, সার্বজনীনগম্যতার প্রতীক হিসেবে ব্যবহৃত হবে।

Asset 23_600x.png

চিত্র ৪.১ সার্বজনীনগম্যতার প্রতীক

৪.৩ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনার সার্বজনীনগম্য অংশ বা ব্যবস্থা সমূহ সার্বজনীনগম্যতার প্রতীক দ্বারা চিহ্নিত থাকতে হবে এবং স্থাপনায় তাদের অবস্থান, সার্বজনীনগম্য চলাচলের পথ থেকে সার্বজনীনগম্য দিক নির্দেশক চিহ্ন দ্বারা সুনির্দিষ্ট করতে হবে।

 

সার্বজনীনগম্য দিক নির্দেশক চিহ্ন

 

৪.৪ | সার্বজনীনগম্য চলাচলের পথের দিকের পরিবর্তন নির্দেশ করতে ব্যবহৃত সার্বজনীনগম্য দিক নির্দেশক চিহ্ন সমূহে, পরিবর্তিত পথের দিকে নির্দেশকারী তীর চিহ্নের সাথে সার্বজনীনগম্যতার প্রতীকটিও ব্যবহার করতে হবে।

Asset 23_600x.png

চিত্র ৪.২ সার্বজনীনগম্য দিক নির্দেশক চিহ্ন ও এর প্রয়োগ

৪.৫ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনার যে সকল সার্বজনীনগম্য ব্যবস্থা বা অংশের অবস্থান চলাচলের পথ থেকে সুস্পষ্ট ভাবে বোধগম্য বা দৃষ্টিগোচর নয়, সেই সকল অংশগামী চলাচলের পথে প্রযোজ্য নাম ফলক ব্যবহার করতে হবে এবং নামের পাশাপাশি অংশটির দিকে সার্বজনীনগম্য দিক নির্দেশক চিহ্নও থাকতে হবে।

 

সার্বজনীনগম্য পরিষেবা নির্দেশক চিহ্ন

 

৪.৬ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় সার্বজনীনগম্য পরিষেবা সমূহের অবস্থান নির্দেশ করতে ব্যবহৃত সার্বজনীনগম্য পরিষেবা নির্দেশক চিহ্নে, পরিষেবা নির্দেশক প্রতীকের সাথে প্রযোজ্য সার্বজনীনগম্যতার প্রতীক ব্যবহার করতে হবে।

Asset 23_600x.png

চিত্র ৪.৩ বিভিন্ন সার্বজনীনগম্য পরিষেবা নির্দেশক চিহ্ন

প্রতীক ও চিহ্নের ধরণ এবং অবস্থান

 

৪.৭ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনার সার্বজনীনগম্য অংশে ব্যবহৃত প্রতীক ও চিহ্ন সমূহ আলোকিত থাকতে হবে।

 

৪.৮ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় ব্যবহৃত প্রতীক ও চিহ্ন সমূহ চকচকে, বা সহজে প্রতিফলন হয় এমন হতে পারবে না এবং পারিপার্শ্বিকের সাপেক্ষে আলাদা করে বোঝা যায় এমন রঙের হবে।

 

৪.৯ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় ব্যবহৃত প্রতীক ও চিহ্ন সমূহে, তাদের ফ্রেম বা ফলকে কোনও ধারালো প্রান্ত বা অংশ থাকতে পারবে না।

 

৪.১০ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনার অভ্যন্তরে ব্যবহৃত প্রতীক ও চিহ্ন সম্বলিত ফলকের মধ্যবিন্দু মেঝে থেকে ১৫০০ মিলিমিটার (প্রায় ৫ ফিট) উচ্চতায় থাকবে।

 

৪.১১ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় ব্যবহৃত প্রতীক বা চিহ্ন সমূহ দরজার পৃষ্ঠতলে স্থাপন করা যাবে না। এক পাল্লা বিশিষ্ট দরজার ক্ষেত্রে হাতল সংলগ্ন দেওয়ালে এবং দুই পাল্লা বিশিষ্ট দরজার ক্ষেত্রে নিকটস্থ দেওয়ালে প্রতীক বা চিহ্ন সমূহ স্থাপন করতে হবে।

 

পিক্টোগ্রাফ

 

৪.১২ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনার সার্বজনীনগম্য অংশ সমূহ চিহ্নিত করতে পিক্টোগ্রাফ বা প্রতীকী চিত্র ব্যবহৃত হলে, সম্পূর্ণ স্থাপনা জুড়ে পিক্টোগ্রাফের ব্যবহার সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে, এবং প্রতিটি পিক্টোগ্রাফের ঠিক নিচেই চিত্রের লিখিত বর্ণনা থাকতে হবে।

 

৪.১৩ | দেখে ও স্পর্শ করে পার্থক্য বোঝা যায় এমন দুইটি ভিন্ন পিক্টোগ্রাফ দ্বারা নারী ও পুরুষের জন্য নির্ধারিত সার্বজনীনগম্য স্যানিটারি ব্যবস্থা চিহ্নিত থাকতে হবে।

 

৪.১৪ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় ব্যবহৃত পিক্টোগ্রাফের আকার দর্শকের দূরত্ব অনুযায়ী নির্ধারিত হবে। দর্শক ৭ মিটার (প্রায় ২৩ ফিট) এর কম দূরত্বে থাকলে প্রতীকের দৈর্ঘ্য বা প্রস্থ ন্যূনতম ৬০ মিলিমিটার (প্রায় ২.৫ ইঞ্চি), ৭ মিটার থেকে ১৮ মিটার (প্রায় ২৩ ফিট থেকে ৬০ ফিট) দূরত্বের মধ্যে থাকলে প্রতীকের দৈর্ঘ্য বা প্রস্থ ন্যূনতম ১০০ মিলিমিটার (প্রায় ৪ ইঞ্চি), ১৮ মিটার (প্রায় ৬০ ফিট) এর অধিক দূরত্বে থাকলে প্রতীকের দৈর্ঘ্য বা প্রস্থ ২০০ মিলিমিটার থেকে ৪৫০ মিলিমিটার (প্রায় ৮ ইঞ্চি থেকে ১৮ ইঞ্চি) এর মধ্যে হবে।

ছক ৪.১ : দর্শকের দূরত্ব অনুযায়ী প্রতীকের আকার

অক্ষর

 

৪.১৫ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় ব্যবহৃত প্রতীক ও চিহ্ন সমূহের লিখিত অংশ সম্পূর্ণ স্থাপনা জুড়ে একই ধরণের হরফে লেখা থাকতে হবে, তবে প্যাঁচানো হরফে বা ইংরেজি ছোট হাতের অক্ষরে লেখা যাবে না।

 

৪.১৬ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় ব্যবহৃত প্রতীক ও চিহ্ন সমূহের লিখিত অংশের অক্ষরের উচ্চতা দর্শকের দূরত্ব অনুযায়ী নির্ধারিত হবে। দর্শক ১.৫ মিটার (প্রায় ৫ ফিট) দূরত্বে থাকলে অক্ষরের উচ্চতা ন্যূনতম ৫০ মিলিমিটার (প্রায় ২ ইঞ্চি), ২ মিটার (প্রায় ৬.৫ ফিট) দূরত্বে থাকলে অক্ষরের উচ্চতা ন্যূনতম ৬০ মিলিমিটার (প্রায় ২.৫ ইঞ্চি), ২.৫ মিটার (প্রায় ৮ ফিট) দূরত্বে থাকলে অক্ষরের উচ্চতা ন্যূনতম ১০০ মিলিমিটার (প্রায় ৪ ইঞ্চি), ৩ মিটার (প্রায় ১০ ফিট) দূরত্বে থাকলে অক্ষরের উচ্চতা ন্যূনতম ১২০ মিলিমিটার (প্রায় ৫ ইঞ্চি), ৪.৫ মিটার (প্রায় ১৫ ফিট) দূরত্বে থাকলে অক্ষরের উচ্চতা ন্যূনতম ১৫০ মিলিমিটার (প্রায় ৬ ইঞ্চি), ৬ মিটার (প্রায় ২০ ফিট) দূরত্বে থাকলে অক্ষরের উচ্চতা ন্যূনতম ২০০ মিলিমিটার (প্রায় ৮ ইঞ্চি), এবং ৮ মিটার (প্রায় ২৬ ফিট) দূরত্বে থাকলে অক্ষরের উচ্চতা ন্যূনতম ২৫০ মিলিমিটার (প্রায় ১০ ইঞ্চি) হতে হবে।

ছক ৪.২ : দর্শকের দূরত্ব অনুযায়ী অক্ষরের উচ্চতা

স্পৃশ্য প্রতীক ও চিহ্ন

 

৪.১৭ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনায় ব্যবহৃত যে সকল প্রতীক, চিহ্ন ও অক্ষর স্পর্শ করে বোঝার প্রয়োজন হয়, তাদের উচ্চতা ১৬ মিলিমিটার থেকে ৫০ মিলিমিটার (প্রায় ৫/৮ ইঞ্চি থেকে ২ ইঞ্চি) এর মধ্যে হবে এবং সংলগ্ন তল বা ফলকের পৃষ্ঠ থেকে ন্যূনতম ০.৮ মিলিমিটার (প্রায় ৪/৫ ইঞ্চি) উঁচু করা থাকতে হবে।

 

ব্রেইল

 

৪.১৮ | সার্বজনীনগম্য স্থাপনার সার্বজনীনগম্য অংশ সমূহ চিহ্নিত করতে ব্রেইল ব্যবহৃত হলে, ব্রেইল অক্ষরগুলো সহজে স্পর্শ করে পড়া যায় এমন হতে হবে এবং মূল প্রতীক বা চিহ্নের লিখিত অংশ বা দিক নির্দেশক চিহ্নের ঠিক নিচেই অবস্থান করবে। ব্রেইল অক্ষরের প্রতিটি ডট, অর্ধ-গোলক আকৃতির গম্বুজের ন্যায় হতে হবে।