১৯. গণপরিবহন

১৯.১ | টার্মিনাল, রেলওয়ে স্টেশন, বাস স্টপ জাতীয় সকল গণপরিবহন পরিষেবা মূলক স্থাপনা সার্বজনীনগম্য হতে হবে।

 

১৯.২ | গণপরিবহন পরিষেবা মূলক স্থাপনায় যাত্রীদের অপেক্ষা করার জন্য নির্ধারিত স্থান সমূহে সার্বজনীনগম্য বসার ব্যবস্থা থাকতে হবে।

 

১৯.৩ | গণপরিবহন পরিষেবা মূলক স্থাপনার যানবাহন সংলগ্ন প্ল্যাটফর্মে যাত্রী উঠা-নামার স্থানে কোনও প্রকার বাধা প্রদানকারী বস্তু থাকতে পারবে না।


১৯.৪ | গণপরিবহন পরিষেবা মূলক স্থাপনায় প্ল্যাটফর্মের মেঝেতে যানবাহন সংলগ্ন প্রান্তের পুরো দৈর্ঘ্য জুড়ে সতর্কতা সূচক দিতে হবে।

 

১৯.৫ | গণপরিবহন পরিষেবা মূলক স্থাপনার প্ল্যাটফর্ম ও সংলগ্ন গণপরিবহনের ডেক বা মেঝে একই উচ্চতায় হতে হবে, অন্যথায় র‍্যাম্প বা লিফট এর সাহায্যে প্ল্যাটফর্ম থেকে সরাসরি যানবাহনে উঠা-নামার ব্যবস্থা থাকতে হবে।

 

১৯.৬ | সকল গণপরিবহনে ন্যূনতম ৯০০ মিলিমিটার (প্রায় ৩ ফিট) প্রস্থ বিশিষ্ট সার্বজনীন ব্যবহার উপযোগী দরজা থাকতে হবে।

 

১৯.৭ | গণপরিবহনের প্রতিটি যাত্রীবাহী কোচে প্রবেশ দরজার নিকটস্থ ন্যূনতম ২টি আসন প্রতিবন্ধী ব্যক্তির জন্য সংরক্ষিত রাখতে হবে।

 

১৯.৮ | গণপরিবহনের প্রতিটি যাত্রীবাহী কোচে প্রবেশ দরজার কাছে হুইলচেয়ার ব্যবহারকারীর হুইলচেয়ারের জন্য ন্যূনতম ১টি উন্মুক্ত স্থান রাখতে হবে। হুইলচেয়ার ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে স্থানটিতে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা সহ স্টপ ব্লক, সেফটি বার, সেফটি স্ট্র্যাপ থাকতে হবে।

 

১৯.৯ | গণপরিবহনের যে সকল কোচে টয়লেট বা খাওয়ার ব্যবস্থা আছে, সেই সকল কোচের অভ্যন্তরীণ চলাচলের পথের ন্যূনতম বাধামুক্ত প্রস্থ ১২০০ মিলিমিটার (প্রায় ৪ ফিট) হতে হবে।